Tuesday, April 28, 2015

ভূমিকম্প

ফেসবুক প্রোফাইল – ১

জোকসটা পড়ে হাসতে হাসতে পেট ব্যাথা হয়ে গেল। এই তো ভূমিকম্পের একটু পরেই দেখলাম ফেসবুকে। হেব্বি জোক! রজনীকান্ত বলছে, “Sorry people! The earthquake happened because I just kept my phone in vibration mode!
হাসতে হাসতেই জোকসটা নিজের ওয়ালে কপি-পেস্ট করে দিলাম, সঙ্গে Feeling Excited!
পোস্ট করতে যাচ্ছি, দেখি অমিতদা পিং করছে। অমিতদা আমার অফিসের টিম লিড। সামলে চলি। সাবধানে লিখলাম,

-       হাই
-      তোমার নেপালে চেনা কেউ আছে?
-      না, মানে... any problem?
-      আমার মা-বাবা একটা ট্যুর গ্রুপের সঙ্গে নেপালে গেছে। লাস্ট এক ঘন্টা ধরে কোন কনটাক্ট করতে পারছি না... feeling very worried
-      ওহ্‌... না আমার তো সেরকম চেনা কেউ নেই...
-      ওকে... দেখো যদি কেউ চেনা থাকে, আমি তোমাকে আমার মা-বাবার নামটা বলে রাখছি... বাড়ির সবাই বড্ড টেন্সড্‌... কিছু লোক এই নিয়েও কী করে এত ইয়ার্কি মারছে কে জানে!
-      ঠিক বলেছেন... এত সিরিয়াস একটা ব্যাপার... আমি দেখছি অমিতদা... চিন্তা করবেন না...

স্ট্যাটাসটা উড়িয়ে দিলাম। ভাগ্যিস পোস্ট করিনি!
------------------XXXXXXXXXXXXXXXXXX----------------------------------


ফেসবুক প্রোফাইল – ২

খবরগুলো দেখার পর থেকে মন খারাপ হয়ে গেছে। কী বীভৎস ভূমিকম্প! কত কত লোক মারা গেছে, ধ্বংসস্তূপের মধ্যে থেকে ডেডবডি বের করে আনছে পর পর। তাকিয়ে দেখা যায় না। ফেসবুকেও দেখছি আপডেট আসছে নানা রকমের। প্রার্থনা করছে সবাই নেপালের জন্য।
আরো কিছু লিঙ্ক আসছে দেখছি। সাহায্য করার জন্য... ডোনেশান পাঠানোর লিঙ্ক। আমিও এরকম দুটো লিঙ্ক শেয়ার করলাম আমার ওয়ালে। ভালো লাগল।

আরে, অফিসের পাপিয়া পিং করেছে! কী সৌভাগ্য! সব সময় তো আমিই পিং করে ভ্যাজ ভ্যাজ করি, আজকে আবার কী হল?

-      হাই... ঐ লেটেস্ট লিঙ্কটায় কি নেট ব্যাঙ্কিং করে টাকা পাঠানো যাচ্ছে?
-      না... মানে... আমি তো পাঠাইনি... ঠিক বলতে পারব না
-      তুমি কি অন্য কোন লিঙ্ক ইউজ করে ডোনেট করেছ?
-      ইয়ে... আমি শেয়ার করলাম... যাতে বাকিরা হেল্প করতে পারে...
-      আর তুমি?
-      আমি আর কতটা কী করতে পারব?
-      আমরা সবাই মিলেই তো সামান্য হলেও সাহায্য করতে পারি...
-     Be right back

অনেকক্ষণ ফেসবুক করছি, একটু টিভি দেখি। পরে অফলাইন হয়ে যাব।
------------------XXXXXXXXXXXXXXXXXX----------------------------------

ফেসবুক প্রোফাইল – ৩

অরিজিৎ পিং করে বলল, ‘শুনেছিস তো দুপুর তিনটের সময় আবার একটা ভূমিকম্প আসছে!’
‘তাই নাকি? তুই কদ্দিয়ে জানলি?’
‘কে একটা বলল... নিউজেও নাকি দেখিয়েছে... ইউ কে না ইউ এসের কোন একটা রিসার্চ ইনস্টিটিউট থেকে বলেছে শুনলাম।’
‘ওহ্‌... তাহলে তো হবেই... এরা সব হাই ফাই মাল ইউজ করে ফোরকাস্ট করে... দাঁড়া ফেসবুকে শেয়ার করে দি...’
ফেসবুকে পোস্ট করে দিলাম, 
‘দুপুর তিনটের সময় আর একটা ভূমিকম্প আসছে। ওই সময় সাবধানে থাকুন। বাড়ির বাইরে থাকুন!’... Feeling worried!

ভালো ঘ্যাম নেওয়া গেল। সবাই এসব খবর পায় না। সোর্স থাকা চাই!

একটা কমেন্ট হয়েছে, নোটিফিকেশান এল। গিয়ে দেখি বাবার বন্ধু সুনীলকাকু কমেন্ট করেছে। যাব্বাবা! বুড়ো লিখেছে, ভূমিকম্প নাকি এভাবে আগে থেকে বলা যায় না। আমি নাকি গুজব রটাচ্ছি! কে রে ভাই! গুজব হলে গুজব... আমার ওয়াল... আমি বুঝব।

আপাতত চুপচাপ থাকি... পরে মালটাকে ব্লক করে দেব। দেখা হলে বলে দেব, ফেসবুকে আজকাল আর নেই কাকু! যত্তসব!

9 comments:

  1. Ekjon bollo PM fund e donate korle tax exempt pawa jabe

    ReplyDelete
  2. Kichhu lok to eisob niyei achhe! Sob somoy tax calculate kore choleche!

    ReplyDelete
  3. Bhukomper moto e ....khansthai kintu anubhabe dirghosthae..besh bhalo..

    ReplyDelete
  4. enjoyed this one :) thik e likhecho :)

    ReplyDelete
  5. enjoyed this one :) thik e likhecho :)

    ReplyDelete